Breaking News
Home / টিপস / আপনিও কি বেশি চা পান করেন! তাহলে আজই সতর্ক হোন… না হলে সম্মুখীন হতে পারেন বিভিন্ন সমস্যার…

আপনিও কি বেশি চা পান করেন! তাহলে আজই সতর্ক হোন… না হলে সম্মুখীন হতে পারেন বিভিন্ন সমস্যার…

বেশিরভাগ লোক দিনের শুরুটা চা বা কফি দিয়ে করেন। এইভাবে কিছু লোক চা এবং কফিতে অভ্যস্ত হয়ে যান এবং তিনি বেশ কয়েকবার চা বা কফি পান করেন। শীতের মৌসুমে মানুষ শীত কমাতে অনেকবার চা বা কফি পান করেন।

আসুন আমরা আপনাকে জানিয়ে দিন বেশি চা পান করা স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ক্ষতিকারক। এর অর্থ হলো মাত্রাতিরিক্ত চা পান করলে আপনার স্বাস্থ্যের ক্ষতি হতে পারে। তাহলে আসুন জেনেনি বেশি চা পান করার অসুবিধা গুলি কি কি।

বেশি চা পান করলে যেমন অসুবিধা হয় তবে সীমিত পরিমাণে চা খেলে শরীর সতেজ থাকে। বিপরীতে অত্যাধিক চা পান করা খুব ক্ষতিকারক। আপনাদের জানিয়ে রাখি এক কাপ চায়ে 20 থেকে 60 মিলিগ্রাম ক্যাফিন পাওয়া যায়।

এক্ষেত্রে দিনে তিন কাপের বেশি চা পান করা আপনার স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। কিছু লোকের সকালে ঘুম থেকে উঠে সাথে সাথেই চা পান করার অভ্যাস থাকে। তা করলে বুকে জ্বালা, পেটের গ্যাস এবং বদহজমের মতো সমস্যা হতে পারে।

এমন পরিস্থিতিতে আপনারও যদি সকালে চা পান করার অভ্যাস থাকে তবে চায়ের আগে কিছু খাবেন। চায়ের মধ্যে ক্যাফিনের পরিমাণ খুব বেশি থাকে, এই জাতীয় ক্ষেত্রে চা অতিরিক্ত গ্রহণের ফলে মাথা ঘোরার মত সমস্যা হতে পারে।

এই সমস্যাটি তখন ঘটে যখন আপনি 400-500 মিলিগ্রামের বেশি ক্যাফিন গ্রহণ করেন। এগুলো ছাড়াও যদি আপনি খুব চাপের মধ্যে থাকেন তবে আপনার স্বল্প পরিমাণে চা পান করা উচিত। অন্যথায় আপনার ও মাথা ঘোরার মত সমস্যা হতে পারে।

যদি আপনি দিনে দুই বা তিন কাপের বেশি চা পান করেন তবে আপনি অনিদ্রার শিকার হতে পারেন। অনেকে রাতের খাবার খেয়ে চা পান করেন, এটা করা ভুল। যেসব লোকেরা এটি করে তাদের মানসিক ভারসাম্যের অবনতি হতে পারে।

বেশি পরিমাণে চা পান করা আপনার কিডনির পক্ষে ক্ষতিকারক হতে পারে। যা আপনাকে একটি বড় সমস্যায় ফেলতে পারে। বিশেষত যারা ডায়াবেটিস রোগী তাদের বেশি চা পান করা উচিত নয়। এমন কি ডায়াবেটিসের রোগীদের বেশি গরম চা ও পান করা উচিত নয়।

এটি কিডনির উপর সরাসরি প্রভাব ফেলে। কিছু লোক খুব বেশি চা করা শুরু করেন এবং পরিস্থিতিতে যখন চা পাওয়া যায় না, তখন তারা ক্লান্ত বোধ করেন। শুধু তাই নয় অনেক সময় লোকেরা বিরক্ত হয়ে ওঠে।

এমন পরিস্থিতে সীমিত পরিমাণে চা পান করার চেষ্টা করুন। গর্ভাবস্থায় চা পান করা উচিত নয় এটি বিভিন্ন ধরনের ক্ষতি করে। আসলে কোনো মহিলা যখন গর্ভাবস্থায় বেশি চা পান করেন, তখন জন্মের সময় শিশুর ওজন হ্রাস হওয়ার ঝুঁকি থাকে।।

About Sahelee Debnath

Check Also

তুলসী পাতা খাওয়ার হাজারো উপকারিতা, জানলে অবাক হয়ে যাবেন।

তুলসী গাছ টিকে হিন্দু ধর্মে অত্যন্ত পবিত্র উদ্ভিদ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। যারা হিন্দু ধর্মে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x